Surah Nuh (71) The Prophet

Surah Nuh

Assalamu walaikum brothers and sisters, if you want to know about Surah Nuh or you want to know the Surah Nuh in English or Surah Nuh in Bangla then you are in the right place. Here we learn about the  meaning of  Surah Nuh in three different languages Insallah.




Surah Nuh in Arabic

بِسْمِ اللَّهِ الرَّحْمَٰنِ الرَّحِيمِ
1. إِنَّا أَرْسَلْنَا نُوحًا إِلَىٰ قَوْمِهِ أَنْ أَنْذِرْ قَوْمَكَ مِنْ قَبْلِ أَنْ يَأْتِيَهُمْ عَذَابٌ أَلِيمٌ
2. قَالَ يَا قَوْمِ إِنِّي لَكُمْ نَذِيرٌ مُبِينٌ
3. أَنِ اعْبُدُوا اللَّهَ وَاتَّقُوهُ وَأَطِيعُونِ
4. يَغْفِرْ لَكُمْ مِنْ ذُنُوبِكُمْ وَيُؤَخِّرْكُمْ إِلَىٰ أَجَلٍ مُسَمًّى ۚ إِنَّ أَجَلَ اللَّهِ إِذَا جَاءَ لَا يُؤَخَّرُ ۖ لَوْ كُنْتُمْ تَعْلَمُونَ
5. قَالَ رَبِّ إِنِّي دَعَوْتُ قَوْمِي لَيْلًا وَنَهَارًا
6. فَلَمْ يَزِدْهُمْ دُعَائِي إِلَّا فِرَارًا
7. وَإِنِّي كُلَّمَا دَعَوْتُهُمْ لِتَغْفِرَ لَهُمْ جَعَلُوا أَصَابِعَهُمْ فِي آذَانِهِمْ وَاسْتَغْشَوْا ثِيَابَهُمْ وَأَصَرُّوا وَاسْتَكْبَرُوا اسْتِكْبَارًا
8. ثُمَّ إِنِّي دَعَوْتُهُمْ جِهَارًا
9. ثُمَّ إِنِّي أَعْلَنْتُ لَهُمْ وَأَسْرَرْتُ لَهُمْ إِسْرَارًا
10. فَقُلْتُ اسْتَغْفِرُوا رَبَّكُمْ إِنَّهُ كَانَ غَفَّارًا
11. يُرْسِلِ السَّمَاءَ عَلَيْكُمْ مِدْرَارًا
12. وَيُمْدِدْكُمْ بِأَمْوَالٍ وَبَنِينَ وَيَجْعَلْ لَكُمْ جَنَّاتٍ وَيَجْعَلْ لَكُمْ أَنْهَارًا
13. مَا لَكُمْ لَا تَرْجُونَ لِلَّهِ وَقَارًا
14. وَقَدْ خَلَقَكُمْ أَطْوَارًا
15. أَلَمْ تَرَوْا كَيْفَ خَلَقَ اللَّهُ سَبْعَ سَمَاوَاتٍ طِبَاقًا
16. وَجَعَلَ الْقَمَرَ فِيهِنَّ نُورًا وَجَعَلَ الشَّمْسَ سِرَاجًا
17. وَاللَّهُ أَنْبَتَكُمْ مِنَ الْأَرْضِ نَبَاتًا
18. ثُمَّ يُعِيدُكُمْ فِيهَا وَيُخْرِجُكُمْ إِخْرَاجًا
19. وَاللَّهُ جَعَلَ لَكُمُ الْأَرْضَ بِسَاطًا
20. لِتَسْلُكُوا مِنْهَا سُبُلًا فِجَاجًا
21. قَالَ نُوحٌ رَبِّ إِنَّهُمْ عَصَوْنِي وَاتَّبَعُوا مَنْ لَمْ يَزِدْهُ مَالُهُ وَوَلَدُهُ إِلَّا خَسَارًا
22. وَمَكَرُوا مَكْرًا كُبَّارًا
23. وَقَالُوا لَا تَذَرُنَّ آلِهَتَكُمْ وَلَا تَذَرُنَّ وَدًّا وَلَا سُوَاعًا وَلَا يَغُوثَ وَيَعُوقَ وَنَسْرًا
24. وَقَدْ أَضَلُّوا كَثِيرًا ۖ وَلَا تَزِدِ الظَّالِمِينَ إِلَّا ضَلَالًا
25. مِمَّا خَطِيئَاتِهِمْ أُغْرِقُوا فَأُدْخِلُوا نَارًا فَلَمْ يَجِدُوا لَهُمْ مِنْ دُونِ اللَّهِ أَنْصَارًا
26. وَقَالَ نُوحٌ رَبِّ لَا تَذَرْ عَلَى الْأَرْضِ مِنَ الْكَافِرِينَ دَيَّارًا
27. إِنَّكَ إِنْ تَذَرْهُمْ يُضِلُّوا عِبَادَكَ وَلَا يَلِدُوا إِلَّا فَاجِرًا كَفَّارًا
28. رَبِّ اغْفِرْ لِي وَلِوَالِدَيَّ وَلِمَنْ دَخَلَ بَيْتِيَ مُؤْمِنًا وَلِلْمُؤْمِنِينَ وَالْمُؤْمِنَاتِ وَلَا تَزِدِ الظَّالِمِينَ إِلَّا تَبَارًا

 

Surah Nuh in English

Meccan Surah ; Verse: 28;  Section: 2

In the name of Allah, Most Gracious, Most Merciful.

1.    We sent Noah to his People (with the Command): "Do you warn your People before there comes to them a grievous Penalty."

2.    He said: "O my People! I am to you a Warner, clear and open:

3.    "That ye should worship Allah, fear Him and obey me:

4.    "So He may forgive you your sins and give you respite for a stated Term: for when the Term given by Allah is accomplished, it cannot be put forward: if ye only knew."

5.    He said: "O my Lord! I have called to my People night and day:

6.    "But my call only increases (their) flight (from the Right).

7.    "And every time I have called to them, that You mightiest forgive them, they have (only) thrust their fingers into their ears, covered themselves up with their garments, grown obstinate, and given themselves up to arrogance.

8.    "So I have called to them aloud;

9.    "Further I have spoken to them in public and secretly in private,

10. "Saying, ´Ask forgiveness from your Lord; for He is Oft-Forgiving;

11. "´He will send rain to you in abundance;

12. "´Give you increase in wealth and sons; and bestow on you gardens and bestow on you rivers (of flowing water).

13. "´What is the matter with you, that ye place not your hope for kindness and long-suffering in Allah,-

14. "´Seeing that it is He that has created you in diverse stages?

15. "´See ye not how Allah has created the seven heavens one above another,

16. "´And made the moon a light in their midst, and made the sun as a (Glorious) Lamp?

17. "´And Allah has produced you from the earth growing (gradually),

18. "´And in the End He will return you into the (earth), and raise you forth (again at the Resurrection)?

19. "´And Allah has made the earth for you as a carpet (spread out),

20. "´That ye may go about therein, in spacious roads.´"

21. Noah said: "O my Lord! They have disobeyed me, but they follow (men) whose wealth and children give them no increase but only Loss.

22. "And they have devised a tremendous Plot.

23. "And they have said (to each other), ´Abandon not your gods: Abandon neither Wadd nor Suwa´, neither Yaguth nor Ya´uq, nor Nasr´;

24. "They have already misled many; and grant You no increase to the wrong-doers but in straying (from their mark)."

25. Because of their sins they were drowned (in the flood), and were made to enter the Fire (of Punishment): and they found- in lieu of Allah- none to help them.

26. And Noah, said: "O my Lord! Leave not of the Unbelievers, a single one on earth!

27. "For, if You dost leave (any of) them, they will but mislead Your devotees, and they will breed none but wicked ungrateful ones.

28. "O my Lord! Forgive me, my parents, all who enter my house in Faith, and (all) believing men and believing women: and to the wrong-doers grant You no increase but in perdition!"

  <<Previous Surah>>      << Home Page>>        <<Next Surah>>

Surah Nuh in Bangla

মাক্কী সূরা ;  আয়াত :28  ; রুকু :2

পরম করুণাময় অসীম দয়ালু আল্লাহর নামে

. আমি নূহকে তার জাতির কাছে পাঠিয়েছিলাম (তাকে আমি বলেছিলাম, হে নূহ!) আপনার জাতির ওপর এক ভয়াবহ শাস্তি আসার আগেই আপনি তাদের সে সম্পর্কে সাবধান করে দিন

. (আমার আদেশ পেয়ে সে তার জাতিকে বললাে,) হে আমার জাতির লােকেরা, আমি তােমাদের জন্যে একজন সুস্পষ্ট সতর্ককারী ব্যক্তি (মাত্র), 

. তােমরা সবাই আল্লাহর আনুগত্য করাে, (সর্বাবস্থায়) তাকেই ভয় করাে, তােমরা আমার কথা মেনে চলাে,

8. (এতে করে) আল্লাহ পাক তােমাদের (আগের) পাপখাতা মাফ করে দেবেন এবং ( দুনিয়ায়) তিনি তােমাদের এক সুনির্দিষ্ট সময় পর্যন্ত (নিজেদের শুধরে নেয়ার) সুযােগ দেবেন; তঁা, আল্লাহর সেই নির্দিষ্ট সময় যখন এসে যাবে তখন তাকে কেউই পিছিয়ে দিতে পারবে না কত ভালাে হতাে যদি তােমরা বুঝতে পারতে

. (নিরাশ হয়ে আল্লাহকে) সে বললাে, হে আমার প্রভু, আমি আমার জাতির মানুষগুলােকে দিনে রাতে (সব সময়ই ঈমানের) দাওয়াত দিয়েছি

. কিন্তু আমার (দিবানিশি) দাওয়াতের ফলে (সত্য থেকে) পালিয়ে বেড়ানাে ব্যতীত তাদের আর কিছুই বৃদ্ধি হয়নি

. যতবার আমি তাদের (আপনার পথে) ডেকেছি-(ডেকেছি) যেন আপনি (তাদের অতীত কৃতকর্ম) মাফ করে দিন, তারা (ততবারই) কানে আংগুল ঢুকিয়ে দিয়েছে এবং নিজেদের (অজ্ঞতার) আবরণ দিয়ে নিজেদের মুখমণ্ডল ঢেকে দিয়েছে (শুধু তাই নয়), তারা (অন্যায়ের ওপর ক্ষমাহীন) জেদ অহমিকা প্রদর্শন করেছে, (হেদায়াতকে অবজ্ঞা করার) ঔদ্ধত্য প্রদর্শন করেছে

. তারপর আমি তাদের কাছে প্রকাশ্যভাবে দ্বীনের দাওয়াত পেশ করেছি

. তাদের জন্যে আমি (দ্বীনের) প্রকাশ্য ঘােষণা দিয়েছি, আমি চুপেচুপেও তাদের কাছে (দ্বীনের কথা) পেশ করেছি,

১০. উপরন্তু বার বার আমি তাদের বলেছি,(অহমিকা বাদ দিয়ে) তােমরা তােমাদের প্রভুর

দুয়ারে (নিজেদের অপরাধের জন্যে) ক্ষমা প্রার্থনা করাে; নিঃসন্দেহে আল্লাহ পাক অত্যন্ত ক্ষমাশীল। 

১১. (তদুপরি) আল্লাহ পাক তােমাদের ওপর আকাশ থেকে অঝাের বৃষ্টিধারা বর্ষণ করবেন;

১২. এবং (পর্যাপ্ত পরিমাণ) ধনসম্পদ সন্তান সন্ততি দিয়ে তিনি তােমাদের সাহায্য করবেন, তােমাদের জন্যে বাগবাগিচা উদ্যান স্থাপন করবেন, (বিরাণ ভূমি আবাদ করার জন্যে) তিনি এখানে নদীনালা প্রবাহিত করবেন

১৩. কি হলাে তােমাদের! তােমরা কি আল্লাহ পাকের কাছ থেকে মানমর্যাদা পাওয়ার একেবারেই আশা পােষণ করাে না

১৪. অথচ তিনিই (ক্ষুদ্র একটি শুক্রকীট থেকে) বিভিন্ন পর্যায়ে তােমাদের (মানুষ হিসেবে) সৃষ্টি করেছেন।

১৫. তােমরা কি দেখতে পাওনা, কিভাবে আল্লাহ পাক সাত আসমান বানিয়ে স্তরে স্তরে (সাজিয়ে) রেখেছেন,

১৬. কিভাবে এর মাঝে তিনি চাদকে আলাে (গ্রহণকারী) সূর্যকে (আলাে দানকারী) প্রদীপ বানিয়েছেন?

১৭. আল্লাহ পাক তােমাদের মাটি থেকে (এক বিশেষ পদ্ধতিতে) উদগত করেছেন (ঠিক একটি তৃণ খণ্ডের মতাে করে),

১৮. আবার (জীবনের শেষে) তিনি তােমাদের সেই মাটির কোলেই ফিরিয়ে নেবেন এবং তা থেকেই একদিন তিনি তােমাদের রহস্য বের করে এনে নতুন জীবন দান করবেন?

১৯. আল্লাহ পাক তােমাদের জন্যে () যমীনকে বিছানার মতাে (সমতল করে) বানিয়েছেন,

২০. যাতে করে তােমরা এর উন্মুক্ত ( প্রশস্ত) পথ ধরে চলাফেরা করতে পারাে

২১. নূহ বললাে, হে আমার প্রভু! আমার জাতির লােকেরা আমার কথা অমান্য করেছে, (আমার বদলে তারা এমন কিছু লােকের অনুসরণ করেছে যাদের ধন সম্পদ সন্তান সন্ততি কেবল তাদের বিনাশ ব্যতীত অন্য কিছুই বৃদ্ধি করেনি। 

২২. তারা (সত্যের বিরুদ্ধে) সাংঘাতিক ধরনের এক ষড়যন্ত্র শুরু করেছে,

২৩. তারা বলে, তােমরা তােমাদের (সেসব) দেবতাদের কোনাে অবস্থায়ই পরিত্যাগ করােনা-ওয়াদ' সূওয়া' (নামক দেবতাদের) উপাসনা কিছুতেই ছেড়ে দিয়াে না, ইয়াগুস' ইয়াউক নাছর নামের দেব দেবীকেও (ছাড়বে) না

২৪. (হে প্রভু!) এরা বিশাল এক জনগােষ্ঠীকে পথভ্রষ্ট করেছে, আপনিও আজ অত্যাচারীদের জন্যে পথভ্রষ্টতা ব্যতীত আর কিছুই বাড়িয়ে নেবেন না

২৫. (অতঃপর) তাদের নিজেদের অপরাধের জন্যেই তাদের (মহাপ্লাবনে) ডুবিয়ে দেয়া হয়েছে, (পরকালেও) তাদের দোযখের কঠিন অগ্নিতে প্রবেশ করানাে হবে, (অবস্থায়) তারা আল্লাহ পাক ব্যতীত দ্বিতীয় কাউকেই কখনােই সাহায্যকারী হিসেবে পাবে না 

২৬. নূহ (আরও) বললাে, হে আমার প্রভু, যমীনের অধিবাসী (অত্যাচারীদের) একজন (গৃহবাসী)-কেও আপনি (আজ শাস্তি থেকে) রেহাই দিবেন না!

২৭. (আজ) যদি আপনি এদের শাস্তি থেকে অব্যাহতি দিন, তাহলে এরা (পুনরায়) আপনার বান্দাদের পথভ্রষ্ট করে দেবে, (শুধু তাই নয়), এরা (ভবিষ্যতেও) দুরাচার পাপী কাফের ব্যতীত কাউকেই জন্ম দেবে না

২৮. হে আমার প্রতিপালক! আপনি আমাকে, আমার পিতা মাতাকে আপনার ওপর ঈমান এনে যারা আমার (সাথে ঈমানের এই) ঘরে আশ্রয় নিয়েছে, এমন সব ব্যক্তিদের এবং সব ঈমানদার পুরুষ মহিলাদের মাফ করে দিন, অত্যাচারীদের জন্যে চূড়ান্ত ধ্বংস ব্যতীত কিছুই আপনি বৃদ্ধি করবেন না

<<Previous Surah>>      << Home Page>>        <<Next Surah>>

*Inspired by the book of Abdullah Yusuf Ali

Post a Comment (0)
Previous Post Next Post